Sambad Samakal
  • June 22, 2024
  • Last Update June 22, 2024 7:50 pm

Puri: পুরীতে সরকারি কোন হোটেলে থাকবেন, জানুন নিয়ম ও রেট

এবার আর পুরীতে গিয়ে হোটেল পেতে নাকাল হতে হবে না। খসাতে হবে না গাঁটের বাড়তি কড়ি। বাঙালি পর্যটকদের জন্য এবার পুরীতে গড়ে উঠছে বঙ্গনিবাস। ফলে ন্যূনতম খরচেই এবার পুরীতে সরকারি হোটেলে থাকার সুবিধা পাবেন বাঙালি পর্যটকরা।

একদিকে মহাপ্রভু জগন্নাথ দেবের অমোঘ আকর্ষণ, অন্যদিকে সমুদ্রের হাতছানি। সব মিলিয়ে তাই সারাবছর পুরীতে বিপুল সংখ্যক বাঙালি পর্যটকের ভিড় থাকে। সেই কথা মাথায় রেখেই এবার পুরীতে এই বঙ্গনিবাস গড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই এবিষয়ে ওড়িশার নবীন পট্টনায়ক সরকারের সঙ্গে কথা বলেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। শুধু কথা বলাই নয়, এরজন্য দু’একর জমি ওড়িশা সরকারের তরফ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে। সেখানকার জমি দেখে পছন্দ হওয়ার পরই রাজ্যের ৮৫ কোটি টাকা ব্যয়ে শুরু হয়েছে বঙ্গনিবাস তৈরির কাজ। রাজ্য পূর্ত দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে, আগামী দু’বছরের মধ্যেই এই প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে যাবে।

এই বঙ্গনিবাস তৈরি হলে সস্তায় থাকার জায়গা পাওয়ার পাশাপাশি হোটেল নিয়ে বাঙালি পর্যটকদের দুশ্চিন্তা অনেকটাই দূর হয়ে যাবে। ২ লক্ষ ৩১ হাজার ৩৭২ বর্গফুট জায়গা জুড়ে গড়ে উঠছে এই বঙ্গনিবাস। যেখানে রেসিডেন্সিয়াল ইউনিট থাকছে ১০৩ টি। স্বাভাবিকভাবেই বিপুল সংখ্যক এই রেসিডেন্সিয়াল ইউনিট থাকার ফলে পুরীতে হোটেল পাওয়া নিয়ে দিনের পর দিন যে সমস্যা তৈরি হচ্ছে তার অবসান ঘটে যাবে এক নিমেষে। এখানে সাধারণদের থাকার পাশাপাশি ভিআইপিদের থাকার জন্য আলাদা ব্লক রাখা হবে। তবে এখানে থাকার খরচ হবে বিলাসবহুল হোটেলগুলির তুলনায় অনেকটাই কম। তবে হোটেল বুকিং কিভাবে করতে হবে, দে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য এখনও জানানো হয়নি।