X-mas: বড়দিনে সাঁইবাবার মন্দিরে সম্প্রীতির নজির

X-mas: বড়দিনে সাঁইবাবার মন্দিরে সম্প্রীতির নজির

সুশ্বেতা ভট্টাচার্য

শিশুদের হাতে কেক তুলে দিলেন বিধায়ক দেবাশিস কুমার।

বড়দিন উপলক্ষে সম্প্রীতির সাক্ষী থাকল দক্ষিণ কলকাতার লর্ডস মোড়ের সাঁইবাবার মন্দির। মন্দির থেকে নানা বয়সের শিশুদের হাতে বড়দিনের কেক তুলে দেওয়ার আয়োজন করল সাঁইবাবা উৎসব কমিটি। শিশুদের হাতে কেক ও লজেন্স তুলে দেন রাসবিহারী কেন্দ্রের বিধায়ক দেবাশিস কুমার, স্থানীয় ৯৩ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর মৌসুমী দাস, ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অসীম বসু-সহ বিশিষ্ট অতিথিরা।

শিশুদের হাতে কেক তুলে দিলেন স্থানীয় ৯৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মৌসুমী দাস, পাশে ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অসীম বসু।

উদ্যোগের প্রশংসা করে বিধায়ক দেবাশিস কুমার বলেন, “যাদের বাবা-মায়ের টাকা আছে, শুধু তাদেরই সান্তাক্লজ উপহার দেবে, সেটা তো হয় না। সান্তার চোখে সবাই সমান। সেকথা মাথায় রেখেই আজ এই আয়োজন করেছেন, তাঁদের ধন্যবাদ। ছোট ছোট এই গরিব শিশুদের কাছে তাঁরাই সান্তাক্লজ হয়ে উঠেছেন।” অনুষ্ঠান থেকেই সর্বধর্ম সমন্বয়ের বার্তা দেন বিধায়ক। যাঁর জন্মদিনকে কেন্দ্র করে এই বড়দিন উৎসব, সেই যিশু খ্রিস্টের প্রেম ধর্মের কথা স্মরণ করিয়ে দেবাশিস কুমার বলেন, “যিনি আমার সঙ্গে থাকবেন তিনি ভালো বন্ধু, যিনি আমার সঙ্গে থাকবেন না , তিনিও ভালো বন্ধু। একথা মাথায় রেখেই আমাদের মানব সেবার কাজ করে যেতে হবে।”

স্থানীয় ৯৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মৌসুমী দাসও আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন এই আয়োজনের জন্য। বলেন,”মন্দির থেকে যিশুর জন্মদিনে কেক বিতরণ সম্প্রীতির শ্রেষ্ঠ নিদর্শন।” রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় গরিব শিশুদের সঙ্গে আনন্দে মেতে উঠতে দেখা যায় তাঁকে। ছিলেন ৯৩ ওয়ার্ড যুব তৃণমূল সভাপতি অনুপ দাস, দক্ষিণ কলকাতা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সম্পাদক তথা উৎসব কমিটির সাধারণ সম্পাদক শান্তনু দাস (রাজা) প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *